Tag Archives: আত্মজৈবনিক

ব্লগ ঠিক করলাম

আমার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে সর্বশেষ পোস্ট দিয়েছিলাম ২০১৭ সালে, দুবছর আগে। এটি সেল্ফ হোস্টেড ওয়ার্ডপ্রেস সাইট। বাংলা ও ইংরেজি দুটো ভিন্নভাবে দেখানোর জন্য MultilingualPress ব্যবহার করেছিলাম। এই প্লাগইনটি বহুভাষিক ব্লগ তৈরির জন্য ওয়ার্ডপ্রেসের মাল্টিসাইট ফিচার ব্যবহার করে। প্রতিটি ভাষার জন্য ভিন্ন একটা ব্লগ থাকবে। এভাবেই ইংরেজি ও বাংলা করেছিলাম। মাল্টিসাইট করতে গিয়ে সাবডোমেইন ভিত্তিক ব্লগ করেছিলাম। ইংরেজিটা ছিল http://suhreedsarkar.com আর বাংলা ব্লগ ছিল http://bn.suhreedsarkar.com । এটা ভালই কাজ করছিল। ওয়ার্ডপ্রেসের আপডেট ঠিকমতোই দিচ্ছিলাম। কিন্তু সমস্যা বাঁধল হোস্টিং বদলাতে গিয়ে। হোস্টিং বদলানোর পর প্রায়ই http://bn.suhreedsarkar.com এ ঢুকতে সমস্যা হতে লাগল। এরপর এক আপডেট দিতে গিয়ে পুরোটাই বেঁকে বসল। আর সেটি কাজ করছিল […]

তবুও সূর্য ওঠে

বন্ধু আমার, তোমার উদ্দেশ্যে লিখছি, দূর থেকে। ভাসমান অবস্থায়। সত্যিকার অর্থেই ভাসছি অথৈ সাগরে, যেভাবেই চিন্তা করো না কেন। আমার এই ভাসমান জীবনে কেউ জানতে চায়নি কেমন আছি। কেউ চায় না। সবাই চায় নিজে ভাল থাকতে। তুমি তাদের মতো নও। তুমি যে তা নও বুঝেছি অনেক আগেই; তোমার সঙ্গে পরিচয়ের মুহূর্তে। তোমার সঙ্গে পরিচয় কোনো এক সন্ধ্যায়, কবিতার আসরে। তুমি কবিতা ভালবাসতে। আরো ভালবাসতে সংগঠন। সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক সংগঠনে তোমার প্রচুর আগ্রহ। সংগঠক হিসেবে তুমি ছিলে সফল। সেই সন্ধ্যায়, এবং তারপর সেটা বেশ ভালভাবেই বুঝেছি। তুমি মানুষের মঙ্গল চাইতে, এখনও চাও। তোমার দু’চোখে স্বপ্ন মানুষের মুক্তির। এই জীর্ন সমাজ ব্যবস্থায় তোমার আস্থা […]

বড় হওয়ার সহজ উপায়

বাবাকে বাইরে যেতে হতো বিভিন্ন সময়ে, বিভিন্ন কাজে। প্রায় প্রতিমাসে একবার জেলা সদর কিংবা বিভাগীয় সদরে যেতে হতো তাকে। বাবা শহরে গেলে আমরা অপেক্ষায় থাকতাম কবে আসবেন। প্রায় দিনই পথ চেয়ে থাকতাম। না, বাবা নূতন জামা-কাপড় বা খেলনা আনবেন সেজন্য না। বাবা ওসব আনতেন না। আনতেন মজার মজার সব বই। ওসব বই পেয়ে আমরা আনন্দে আটখানা হতাম। সাতরাজার ধন এনে দিলেও হয়তো ও রকম আনন্দিত হতাম না। তখন পড়ি ক্লাশ থ্রিতে। বাবা গেছেন শহরে। অপেক্ষায় আছি কী বই আনেন তা দেখতে। দেখলাম বাবা দুটি বই এনেছেন। কোনো গল্প বা কবিতার বই না। পরিচিত কোনো লেখকেরও না।। বই দুটোর লেখক ডেল […]

সালতামামি ২০০৯

২০১০ এসে গেছে। তারপরও একবার ২০০৯ এর দিকে তাকানো যেতে পারে। ২০০৯ সাল বেশ ভালো কেটেছে আমার জন্য। কারণ: এ বছর আমি নূতন এক জীবনের সন্ধান পেয়েছি। অনেক দিন থেকে জীবনের প্রশান্তি হারিয়ে যাচ্ছিল। ক্রমাগত উদ্বিগ্নতা, অস্থিরতা বাড়ছিল। ২০০৫ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত মূলত আমি এক অস্থির জীবন কাটিয়েছি। মনোযোগ দিয়ে তেমন কিছুই করতে পারিনি। আর ২০০৯ এ কোয়ান্টাম মেথড কোর্স করার পর মেডিটেশনের মাধ্যমে আমি এক প্রশান্তিময় জীবনের সন্ধান পেয়েছি। এ বছর আমার একটু প্রমোশন হয়েছে, চাকরিতে। আগের চেয়ে বেতন বেড়েছে। বেড়েছে কাজের পরিধি। এ বছর আমি প্রথম গাড়ি কিনেছি। এ বছর প্যাক্ট পাবলিশিং থেকে আমার দুটি বই প্রকাশিত হয়েছে: […]