Tag Archives: সাফল্য

সুদর্শন রাজপুত্রকে দেখুন

রূপকথার সেই রাজকন্যার কথা মনে আছে? সেই রাজকন্যা যেমন-তেমন কাউকে বিয়ে করার স্বপ্ন দেখেনি; এমনকি কেবল রাজকুমারেই সন্তুষ্ট নয় সে। তার চাই সুদর্শন মনের মতো রাজপুত্র। সে এমন এক রাজপুত্রের কল্পনা করে এসেছে যে তার উপযুক্ত হবে, সবদিক দিয়েই। আপনার ব্যক্তিগত জীবনে কিংবা কর্মক্ষেত্রে এই সুদর্শন রাজপুত্র কিংবা রাজকন্যা-টি কেমন? সত্যিকার সুখী ও পরিপূর্ণ মানুষ হতে হলে আপনাকে পরিষ্কারভাবে সেটিকে সংজ্ঞায়িত করতে হবে: আপনি কোন মানুষের জীবন যাপন করতে চান। আপনি যদি আপনার মধ্যকার সর্বোত্তম ব্যক্তিটি হতে চান তাহলে তার কোন কোন গুণ ও চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য থাকা দরকার? একজন পূর্ণ-কর্মক্ষম, আত্ম-নিয়ন্ত্রণকারী মানুষের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে বলেছেন মনোবিদরা। তারা সাধারণত সুখী, তারা […]

তোমার তুলনা তুমি

প্রতিটি মানুষ অনন্য; পৃথিবীতে কোনো একটি মানুষ আরেকটি মানুষের মতো হুবহু এক নয় – চেহারা, গুণ, বুদ্ধিমত্তা সব মিলিয়ে। মানুষের এই অনন্যতা যখন স্বীকার করে নিতে পারবেন এবং প্রতিটি অনন্য মানুষকে শ্রদ্ধা করতে পারবেন তখন আপনি নিজেই এক অদ্ভুত প্রশান্তি অনুভব করবেন। নিজের ক্ষেত্রে এটি আরো সত্য। নিজের অনন্যতাকে স্বীকার করে নিয়ে নিজের উপর সন্তুষ্ট হতে পারেন। আমি কেন অমুকের মতো নই – স্রষ্টা কেন আমাকে তার মতো বানালো না, এরকম চিন্তা তখন আপনাকে বিব্রত করতে পারবে না।

আপনার সম্পর্কে সাতটি সত্য

আপনি যতদিন বেঁচে আছেন ততদিন সুখী, প্রশান্ত, আনন্দময় এবং উত্তেজনায় পরিপূর্ণ এক জীবন যাপনের অধিকার আপনার আছে। আপনার সৃষ্টিই এজন্য। এই স্বাভাবিক অবস্থায় আপনি প্রতি সকালে ঘুম থেকে উঠবেন একটি সুন্দর দিন শুরু করার জন্য। আপনি আপনার নিজের সম্পর্কে এবং অন্যদের সঙ্গে সম্পর্কগুলোকে চমৎকার মনে করবেন। আপনি আপনার কাজকে উপভোগ করবেন এবং কোনো পরিবর্তন আনায় অবদান রাখতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করবেন। আপনার প্রধান লক্ষ্য হবে আপনার জীবনকে এমনভাবে গুছিয়ে নেয়া যাতে প্রতিদিন আপনি এসব অনুভব করতে পারেন। পরিপূর্ণ ও পূর্ণবয়স্ক মানুষ হিসেবে আপনি প্রতিদিন এমনকিছু করবেন যা আপনাকে আপনার সম্ভাবনার পরিপূর্ণতার দিকে নিয়ে যাবে। আপনার চারপাশে বিভিন্ন অনুগ্রহের জন্য […]

ব্যাঙকে খাও চুমু!

আপনি এই পৃথিবীতে কেন? আপনি এখানে এসেছেন মহত্তম কিছু করার জন্য, সুখ ও প্রাচুর্যের মাঝে বাস করার জন্য, সুন্দর কিছু সম্পর্ক নিয়ে বাঁচার জন্য, সুন্দর স্বাস্থ্য, প্রাচুর্য, আর জীবনের পূর্ণতা পাওয়ার জন্য। তাহলে আপনি আপনার এই স্বপ্নের জীবন যাপন করছেন না কেন? আপনি যদি আপনার সুখ কিংবা অসুখ, সাফল্য কিংবা ব্যর্থতা, বিজয় কিংবা পরাজয় এর কারণ জানতে চান তাহলে আয়নায় নিজের মুখের দিকে তাকান। আয়নায় আপনি যে মুখটি দেখতে পাচ্ছেন তার সম্পর্কে আপনার চিন্তার মানই নির্ধারণ করবে আপনার জীবনের মান। আপনি যদি নিজের সম্পর্কে চিন্তাকে বদলান তাহলেই বদলাতে পারবেন নিজের জীবন – প্রায় সাথে সাথে।