নেতৃত্ব ও যোগাযোগ

নেতৃত্বের জন্য সবচেয়ে জরুরী হলো যোগাযোগ – ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ, অন্য দলের সাথে যোগাযোগ। এমন যোগাযোগ যা কোনো অস্পষ্টতা রাখে না, যখন দরকার তখনই করা যায় এবং সবপক্ষ একই জিনিস বোঝে। যোগাযোগে অদক্ষ হয়ে কেউ নেতা হয়েছেন দেখাতে পারবেন? তাই নেতা হতে চাইলে যোগাযোগের ক্ষেত্রে দক্ষ হোন। যোগাযোগের জন্য নিচের বিষয়গুলি মনে রাখুন:

১. ধারাবাহিকতা বজায় রাখুন: আপনি কোনো টীমকে পরিচালনা করে থাকরে তাদের সাথে কথাবার্তায় ধারাবিহকতা বজায় রাখুন। সকালে এক কথা আর বিকেলে আরেক কথা বললে সেই টিম সহজেই বিভ্রান্ত হবে। অনেককেই দেখা যায় দ্রুত সিদ্ধান্ত বদলান এবঙ এরকম কথায় টিমের অন্যান্যরা বিভ্রান্ত হন। তাই এরকম কোনো বিষয় কাউকে জানাতে হলে ভালভাবে ব্যাখ্যা করুন কেন আপনি আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসলেন।

২. সুস্পষ্ট হোন: আপনি কী চান সে ব্যাপারে সুস্পষ্ট হোন। অনেকক্ষেত্রে কূটনৈতিক ধোঁয়াশা কাজ করতে পারে, কিন্তু নিজের লোকদের সাথে এটি ব্যবহার করতে থাকলে তারা বিভ্রান্ত হতে থাকবে। তাই যা চান সুস্পষ্টভাবে বলুন, যা নির্দেশ দেন সুস্পষ্টভাবে দিন। এমন কোনো নির্দেশ দেবেন না যার একাধিক ব্যাখ্যা দাঁড় করানো যায়।

৩. সৌজন্য বজায় রাখুন: সবসময় সৌজন্য বজায় রাখুন, যারা আপনার জন্য কাজ করছে তারা আপনার দাস নয়, আপনিও তাদের প্রভু নন। সৌজন্যমূলক আচরণ তাদের উজ্জীবিত করে, যা টাকা দিয়েও করা যায় না। আপনার ভদ্র ব্যবহার, সৌজন্যবোধ, মমত্ব এসবই বড় উদ্দীপক।

জন সি ম্যাক্সওয়েল

Series Navigation<< কোন কাঁটা – ঘড়ি নাকি কম্পাস?

Also published on Medium.

Leave a Reply

%d bloggers like this: