সাফল্যের ক্যাফেটারিয়া মডেল

জীবন কী – নদী না বৃক্ষ? এ প্রশ্ন তুলেছিলেন মোতাহের হোসেন চৌধুরী। তেমনি এক প্রশ্ন আপনাদের সামনে – জীবন কি একটি রেস্তোরা নাকি বুফে? রেস্তোরায় গিয়ে আপনি পছন্দমতো খাবার অর্ডার দিতে পারেন। তারপর খাওয়া শেষে বিল শোধ করতে হয়। আর বুঁফে সিস্টেমে খাবার সাজানো থাকে আপনার সামনে। এবং খাবারের দামও নির্দিষ্ট। একটি সেটের যাই খান না কেন আপনাকে একটি নির্দিষ্ট মূল্য পরিশোধ করতে হবে। মূল্য পরিশোধ করার পর আপনি সেখান থেকে খাবার নিয়ে খেতে পারবেন, আপনার পছন্দমতো। জীবন আসলে এই বুফে বা ক্যাফেটারিয়ার মতোই। আপনাকে নিজেই খাবার সংগ্রহ করতে হবে, আগেই বিল পরিশোধ করে।

অনেকেই আগেই সাফল্য চায়, সাফল্যের পরে সেই মূল্য পরিশোধ করতে চায়। আগে এটি কাজে লাগুক – তারপর আপনাকে পুরষ্কৃত করব এই ভেবে আপনি যদি  এই বইটি হাতে নেন তাহলে আপনার সাফল্য আসবে না।

উদ্দীপক জিগ জিগলারের নাম অনেকেই শুনে থাকবেন। তিনি বলেছেন, ‘সাফল্যের এলিভেটর বর্তমানে বিকল। কিন্তু সিঁড়ি সবসময়ই খোলা।’ তার মানে এলিভেটর বেয়ে তরতর করে উপরে উঠে যাওয়ার মতো সাফল্যের স্তরে আপনি উঠতে পারবেন না, সিঁড়ি বেয়ে ওঠার মতো করেই উঠতে হবে।

এরিস্টলের আরেকটি শিক্ষা ছিল এই যে, মানুষের পরম সার্থকতা হলো ব্যক্তিগত সুখলাভের মাধ্যমে। আমরা যাই করি না কেন আসলে অবশেষে নিজেদের সুখের জন্যই, নিজের আনন্দের জন্যই।  তাই আপনি যদি নিজের আনন্দ বঞ্চিত করে সাফল্য পেতে চান তাহলে তা আপনাকে সাফল্যের উল্টো দিকে নিয়ে যেতেই বেশি সফল হবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: